পূর্ব-বাংলায় কচুরিপানার সমস্যাপূর্ণ ইতিহাস

পূর্ব-বাংলায়-কচুরিপানার-সমস্যাপূর্ণ-ইতিহাস

প্রথম বিশ্বযুদ্ধের কারণে বিশ্ববাজারে পটাশের সংকট তখন। তাই ‘Messrs Shaw and Wallace & Co’ নামের এক কোম্পানি ভারত সরকারকে প্রস্তাব দেয় তারা রাসায়নিক উপায়ে পটাশ তৈরির চেষ্টা করতে চায় কচুরিপানা থেকে। যদি ভালো মানের কচুরিপানা শুঁকিয়ে কিংবা ছাই আকারে পাঠানো যায় তবে প্রতি টনে তারা ৮৪ থেকে ১১২ রুপী পর্যন্ত দিতে রাজী আছে। কয়েকদফা নমুনা হাতে পাওয়ার পর কোম্পানিটি কচুরিপানাতে প্রত্যাশিত মানের পটাশ পায়নি। তারা জানায় যদি পাঠানো নমুনায় ১৫ শতাংশের নীচে পটাশ থাকে তবে তারা কিনতে রাজী না। 

Total
0
Shares
মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Previous Post
লিনাস-পলিং:-ভাগ্য-সহায়-হলেই-পেতেন-তৃতীয়বারের-মতো-নোবেল

লিনাস পলিং: ভাগ্য সহায় হলেই পেতেন তৃতীয়বারের মতো নোবেল

Next Post
নিপুণ-দেবনাথ-অক্ষর-থেকে-অবয়ব-তৈরির-কারিগর

নিপুণ দেবনাথ- অক্ষর থেকে অবয়ব তৈরির কারিগর

Related Posts
কে-জিততে-চলেছে-এবারের-ক্যান্ডিডেটস-টুর্নামেন্ট?-||-শেষ-পর্ব

কে জিততে চলেছে এবারের ক্যান্ডিডেটস টুর্নামেন্ট? || শেষ পর্ব

তবুও একজনের নাম যদি বলতেই হয়, তবে আমি ইয়ান নেপমনিয়াশির কথা বলবো। সে খুব শক্ত প্রতিপক্ষ হবে কার্লসেনের…
সব পড়ুন
পূর্ব-ইউরোপে-তুর্কি-ড্রোন:-রাশিয়ার-বিরুদ্ধে-কতটা-কার্যকরী?

পূর্ব ইউরোপে তুর্কি ড্রোন: রাশিয়ার বিরুদ্ধে কতটা কার্যকরী?

যুদ্ধক্ষেত্রে তুর্কি–নির্মিত অ্যাটাক ড্রোনের সাফল্য পর্যবেক্ষণ করে পূর্ব ইউরোপীয় রাষ্ট্রগুলো রুশ প্রভাব প্রতিহত করার উদ্দেশ্যে তুর্কি ড্রোন ক্রয়ে…
সব পড়ুন